রবিবার, ১৮ অক্টোবর ২০২০, ০৪:২৭ পূর্বাহ্ন

আজ হুমায়ুন ফরিদীর প্রয়াণ দিবস

আলোকিত নারায়ণগঞ্জ : অভিনয়ের দার্শনিক। অভিনয় দিয়ে কি না করেছেন এই অসমান্য, তার অভিনয়ে মানুষ হেসেছে, কেঁদেছে, বিস্মিত হয়েছে, হতভম্ব হয়ে তাকিয়ে দেখেছে একজন হুমায়ূনের অভিনয় ক্ষমতা কতটা প্রবল, কতটা বিস্ময়কর!

জাত অভিনেতা ছিলেন হুমায়ুন ফরিদী। তার রক্তে মিশে ছিলো অভিনয়, নাট্য জগতের সবাই বুঝে ফেলেছিল ধূমকেতুর জন্ম হয়েছে, একদিন শাসন করবে এই যুবক। সেদিনের হিসেব এক চিলতেও ভুল হয়নি, এরপর টানা তিন দশক নিজের ম্যাজিকাল অভিনয়ে বুঁদ করে রেখেছিলেন পুরো বাঙালি জাতিকে।

বাংলাদেশের সাংস্কৃতিক অঙ্গনের সবচেয়ে সব্যসাচী প্রতিভা তিনি। যখন যেখানে ছুঁয়েছেন, সেখানেই ফুটেছে ফুল। কি অসাধারণ তার অভিনয় দক্ষতা, কি নিখুঁত, কি মোহনীয়!

১৯৫২ সালের ২৯ মে ঢাকার নারিন্দায় জন্মগ্রহণ করেন তিনি। ১৯৭৬ সালে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে অনুষ্ঠিত নাট্য উৎসবের তিনি অন্যতম সংগঠক ছিলেন। এ উৎসবের মাধ্যমেই তিনি নাট্যাঙ্গনে পরিচিত মুখ হয়ে ওঠেন। বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রাবস্থাতেই তিনি ঢাকা থিয়েটারের সদস্যপদ লাভ করেন। ১৯৯০-এর দশকে হুমায়ুন ফরিদী চলচ্চিত্র জগতে প্রবেশ করেন। সেখানেও তিনি বিপুল জনপ্রিয়তা পান। বলা হয়, শুটিং চলাকালে অভিনেতার তুলনায় দর্শকরা হুমায়ুন ফরিদীর দিকেই আকর্ষিত হতো বেশি। বাংলাদেশের নাট্য ও সিনেমা জগতে তিনি অসাধারণ ও অবিসংবাদিত চরিত্রে অভিনয়ের জন্য স্মরণীয় হয়ে আছেন।

২০০৪ সালে তিনি জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার লাভ করেন। এরপর নাট্যাঙ্গনে অসামান্য অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ প্রতিষ্ঠানের ৪০ বছর পূর্তি উপলক্ষে তাকে সম্মাননা দেয়। ২০১২ সালের এ দিনে ঢাকায় এ অভিনেতার মৃত্যু হয়। পরে ২০১৮ সালে তাকে মরণোত্তর একুশে পদকে ভূষিত করা হয়।

নিউজটি শেয়ার করুন...

আপনার মতামত লিখুন........


© All rights reserved © 2018 Alokitonarayanganj24.net
Design & Developed BY N Host BD
error: দুঃখিত রাইট ক্লিক গ্রহনযোগ্য নয় !!!