মঙ্গলবার, ১৭ মে ২০২২, ০৯:১৯ অপরাহ্ন

আলদির মাঠায় মেশানো হয় গুঁড়া দুধ-স্যাকারিন

আলোকিত নারায়ণগঞ্জ:মুন্সিগঞ্জে একনামে পরিচিত আলদির মাঠা। প্রতিদিন সকাল হলেই জনপ্রিয় এ মাঠা কিনতে সদর উপজেলার মাকহাটি মাঠ ও পার্শ্ববর্তী টঙ্গীবাড়ী উপজেলার আলদী বাজারে ভিড় জমান স্থানীয়রা। ঢাকা, নারায়ণগঞ্জ থেকেও মানুষ ছুটে আসেন মাঠা কিনতে।

জনপ্রিয় এ মাঠা কারখানায় অভিযান চালিয়ে মাঠা তৈরির পাত্রে বিপুল পরিমাণ সাদা পোকা কিলবিল করতে দেখেছে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর। এছাড়া বিভিন্ন অনিয়মের তথ্য পেয়েছেন তারা। এ ঘটনায় মাঠা প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠানটির মালিক কমল ঘোষকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

শনিবার (৯ এপ্রিল) বেলা ১১টার দিকে সদর উপজেলার মাকুহাটি এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর। অভিযান পরিচালনা করেন অধিদপ্তরের মুন্সিগঞ্জ জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক আসিফ আল আজাদ।

তিনি জানান, আলদির মাঠা হিসেবে পরিচিত কমল ঘোষের মাঠা কারখানায় অভিযান পরিচালনা করে দেখা যায় যে, নোংরা ও অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে মাঠা প্রক্রিয়াজাত ও প্রস্তুত করা হচ্ছে। মাঠার কারখানার পাশেই সব আবর্জনা ফেলা হচ্ছে। বিপুল পরিমাণে মাছি ও সাদা পোকা মাঠা তৈরির পাত্রে কিলবিল করছে। কোনো পেস্ট কন্ট্রোল মেকানিজম সেখানে নেই।

ভোক্তা অধিদপ্তরের এ কর্মকর্তা আরও বলেন, ‘২৫ বছর ধরে মাঠা বিক্রি করলেও কোনো ধরনের লাইসেন্স নেননি প্রতিষ্ঠানটির মালিক। প্রস্তুতকারক মাঠার উপাদান হিসেবে গাভির দুধ, পানি, চিনি ও লবণের কথা বলা হয়। কিন্তু অনুসন্ধান করে বস্তার গুঁড়া দুধ ও স্যাকারিন পাওয়া গেছে কারখানাটিতে। এগুলো মেশানোর কথা তারা স্বীকার করেন।’

‘মাঠা ঠান্ডা করতে বরফকল থেকে আনা বস্তার বরফ ব্যবহার করতে দেখা যায়। মাঠার বোতলে উৎপাদনের তারিখের মেয়াদ শেষ; মূল্য, উপাদান ও পরিমাণ কিছুই উল্লেখ করা হচ্ছে না’- যোগ করেন সহকারী পরিচালক আসিফ আল আজাদ।

এসব অভিযোগে প্রতিষ্ঠানটিকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করে সতর্ক করে দিয়েছে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর।

অভিযানে আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়নের একটি টিম ও উপজেলা স্যানিটারি ইন্সপেক্টর মো. জামাল উদ্দিন মোল্লা উপস্থিত ছিলেন।

নিউজটি শেয়ার করুন...

আপনার মতামত লিখুন........


© All rights reserved © 2018 Alokitonarayanganj24.net
Design & Developed by M Host BD
error: দুঃখিত রাইট ক্লিক গ্রহনযোগ্য নয় !!!