শুক্রবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২০, ০৩:৪২ অপরাহ্ন

না’গঞ্জের ছাত্র রাজনীতিতে সফল রনি ব্যর্থ সাহেদ

আলোকিত নারায়ণগঞ্জ : বিএনপির রাজনৈতিক অঙ্গনে ছাত্র রাজনীতি দলটির ভ্যানগার্ড হিসেবে খেতাব থাকলেও অযোগ্য নেতৃত্বের কারনে এই সংগঠনটির সুনাম প্রতি নিয়তই বিলীন হওয়ার পথে। আর আন্দোলন সংগ্রামের সূতিকাগার হিসেবে খ্যাত নারায়ণগঞ্জের রাজনীতিতে এই সংগঠনটির দায়িত্বে থাকা নেতাদের নেতৃত্বের অবদান দলটির তেমন কোন সফলতা ভয়ে আনতে পারেনি। তবে সেই দিক দিয়ে হিসেবের খাতায় কিছুটা অবদান রাখতে সক্ষম হয়েছেন জেলা ছাত্র দলের সভাপতি মশিউর রহমান রনি। সাংগঠনিক দক্ষতা ও পারদর্শীরা ফলে নিজের অবস্থানের পাশাপাশি নারায়ণগঞ্জের ছাত্র দলের মান রক্ষা করেছেন তিনি।
নারায়ণগঞ্জ জেলা ছাত্র দলের সভাপতি পাশাপাশি রনি নিজের অবস্থান কেন্দ্রীয় পর্যায় তুলে ধরতে সক্ষম হলেও, তার ছিটে ফোটাও করে দেখাতে পারলেন না মহানগর ছাত্র দলের সভাপতি সাহেদ আহম্মেদ। সব সময় নিজের ভাব টাকে বাড়িয়ে তোলার বৃথা চেষ্টায় মগ্ন এই ছাত্র দলের সভাপতি স্থানীয় পর্যায়ও দিয়ে যাচ্ছেন ব্যর্থতার পরিচয়।
অপরদিকে, মশিউর রহমান রনি জেলা ছাত্র দলের ৭ সদস্য বিশিষ্ট আহবায়ক কমিটি থাকা কালিন সবচেয়ে কণিষ্ঠ যুগ্ম-আহবায়ক হয়েও, নিজের পারদর্শীতা ও সাংগঠনিক দক্ষতার কারিশমায় রাজনৈতিক অঙ্গনে একের পর এক জায়গা করে নিতে সক্ষম হয়েছেন। ইতিমধ্যেই তিনি ঢাকা বিভাগীয় ছাত্র দলের সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক পদে আশিন হয়েছেন নিজের দক্ষতার ফলে।
এছাড়াও কেন্দ্রীয় থেকে শুরু করে স্থানীয় পর্যায় দলীয় কর্মসূচিতে তার উপস্থিতি এখনও চোখে পরার মত। বিভিন্ন সময় তার কর্মকান্ডই তাকে জাতীয় পর্যায় আলোচনার কেন্দ্র বিন্দুতে পরিনত হতে দেখা গেছে। সদ্য কেন্দ্রীয় ছাত্র দলের নির্বাচনে তিনি সাধারণ সম্পাদক পদে নির্বাচনের সাহসীকতা দেখিয়েছেন সকলের মাঝে।
এদিকে, মহানগর ছাত্র দলের সভাপতি সাহেদ আহম্মেদ কমিটির দায়িত্ব পাওয়ার পর থেকে মূল দলের কর্মসূচিতে তেমন একটা দেখা যায় না বললেই চলে। এছাড়াও শুরু থেকেই সাংগঠনিক ব্যর্থতা ছাড়া নেই তেমন কোন উল্লেখ যোগ্য অবদান। ভাগ্য ক্রমে হাতে পাওয়া ছাত্র দলের কমিটিকে ব্যবহার করে পেরেছেন শুধু সভাপতির ভাবে মশগুল হতে। এর বাইরে দলের জন্য তেমন কোন কারিশমা দেখাতে পারেননি তিনি।
মহানগর বিএনপি, যুবদল, স্বেচ্ছাসেবক দল সাংগঠনিক ভাবে নিজের অবস্থান শক্তিশালী করতে দক্ষতার পরিচয় দিলেও, তার ছিটে ফোটা অবস্থানের কাতারে দাড়াতে পারেনি মহানগর ছাত্র দল।
রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের মতে, একটি দলের ছাত্র রাজনীতির দায়িত্ব ঐ সকল নেতাদের হাতে দেওয়া উচিৎ। যাদের মধ্যে সাংগঠনিক দক্ষতা, শিক্ষাগত যোগ্যতা, বিচার বিশ্লেষনের ক্ষমতা, চৌকষতা, রাজনৈতিক পারায় নিজের অবস্থান তুলে ধরার ইচ্ছা শক্তি থাকতে হবে। তাহলেই এই সংগঠনের দায়িত্বে থাকা নেতা ও কর্মীরা আগামীতে দল ও দেশের জন্য কল্যায়ন কর কিছু করে দেখাতে পারবে।
তবে সেই জন্য অবশ্যই প্রয়োজন মাদকাশক্তদের এই সংগঠন থেকে দুরে রাখতে হবে। কারন কোন মাদকাসক্ত ছাত্রের হাতে এই সংগঠনটির রাজনীতি চলে গেলে অন্যান্য ছাত্ররা তার আদলে এসে বিপদগামী হয়ে পরবে। সেই ক্ষেত্রে রাজনীতিতে এই সংগঠনের যুক্তরা বর্তমান ও ভবিষ্যতে দলের জন্য কোন সুফল ভয়ে আনতে পারবে না। এরা নিজেদের পাশাপাশি ভবিষ্যত্ব প্রজন্মকে অনিশ্চিয়তার দিকে ঠেলে দিবে।

নিউজটি শেয়ার করুন...

আপনার মতামত লিখুন........


© All rights reserved © 2018 Alokitonarayanganj24.net
Design & Developed BY N Host BD
error: দুঃখিত রাইট ক্লিক গ্রহনযোগ্য নয় !!!