শনিবার, ১৬ নভেম্বর ২০১৯, ১০:৫২ অপরাহ্ন

ফতুল্লায় কিল ঘুষি লাথি মেরে বাবলুকে হত্যা করে আলম

আলোকিত নারায়ণগঞ্জ:নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লার হাজীগঞ্জ বাজার এলাকায় তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে ব্যবসায়ী মাহবুবুল হক বাবলুকে (৫০) কিল, ঘুষি ও লাথি মেরে হত্যা করেছে আলম নামে এক ব্যক্তি।

এরপর আলম নিজেই বাবলুকে তার বাড়িতে নিয়ে যায়। সেখান থেকে হাসপাতালে নিয়ে মৃত্যু সংবাদ শুনে পালিয়ে যায় আলম।

বুধবার বিকালে নারায়ণগঞ্জ সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট কাউছার আলমের আদালতে দোষ স্বীকার জবানবন্দি দিয়েছে আলম (৪৫)।

এর আগে তাকে মঙ্গলবার বিকালে ফতুল্লার বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে গ্রেফতার করা হয়।

আলম (৪৫) ফতুল্লার তল্লা সুপারীবাগ এলাকার বেনু মিয়ার ছেলে। মামলার তদন্তকারী অফিসার ফতুল্লা মডেল থানার এসআই মিজানুর রহমান বলেন, আলম একাই বাবলুকে হত্যা করেছে। গত ৭ অক্টোবর রোববার দিবাগত রাত ৩টায় মাহবুবুল হক বাবলু (৫০) হাজীগঞ্জ বাজারে জাফরের চায়ের দোকানে চা খেতে যান। সেখানে আগে থেকেই বসে ছিলেন আলম।। এ সময় আলমকে কাজ কর না ঘুরে-ফিরে কি কর জিজ্ঞেস করে বাবলু। এ নিয়ে তর্কে জড়িয়ে আলম কয়েকটি ঘুষি দেয় বাবলুকে। এতে বাবলু মাটিতে পড়ে গেলে আলম আরও কয়েকটি লাথি দেয়।

তিনি বলেন, বাবলু মাটিতে পড়ে গেলে স্থানীয়রা আলমকে চাপ দেয় ডাক্তারের কাছে নিতে। তখন আলম ডাক্তারের কাছে না নিয়ে বাবলুকে তার বাড়িতে নিয়ে যায়। বাবলুর ভাইয়েরা বিষয়টি জানতে পেরে আলমকে তাদের বাসায় মারধর করে।

মিজানুর রহমান বলেন, একপর্যায়ে আলম একাই রিকশায় উঠিয়ে বাবলুকে খানপুর ৩০০ শয্যা হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিয়ে আসে। পিছনে বাবলুর ভাইয়েরাও আসে। হাসপাতালের চিকিৎসক যখন বাবলুকে মৃত ঘোষণা করেন তখন আলম পালিয়ে যায়।

তিনি আরও বলেন, এ ঘটনায় নিহতের বড় ভাই জুয়েল বাদী হয়ে ফতুল্লা মডেল থানায় ৪ জনের নাম উল্লেখ করে মামলা করেছেন।

নিউজটি শেয়ার করুন...

আপনার মতামত লিখুন........


© All rights reserved © 2018 Alokitonarayanganj24.net
Design & Developed BY N Host BD
error: দুঃখিত রাইট ক্লিক গ্রহনযোগ্য নয় !!!