বুধবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২১, ০৭:২৫ অপরাহ্ন

ফতুল্লায় সন্ত্রাসীদের মাইরের ভয়ে কিশোরের আত্মহত্যা

আলোকিত নারায়নগঞ্জ: গেমস থেকে ভিডিও আপলোড করে ফেসবুকের নিজ স্টোরিতে “ফাস্ট টাইম মেশিন চালাইলাম” লেখা সেই কিশোর তানভীর(১৭) এবার সন্ত্রাসীদের পিটুনির হাত থকে বাচঁতে আত্নহত্যার পথ বেছে নিলেন।

মঙ্গলবার বিকেলে তিনি নিজ ঘরের সিলিং ফ্যানের সাথে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্নহত্যা করেন।

নিহত তানভীর জামালপুর জেলার মেলান্দ থানার টঙ্গীবাড়ীর নজরুল ইসলামের পুত্র ও ফতুল্লা থানার দাপা কবরস্থান সড়কের কুদ্দুস মিয়ার বাড়ীর ভাড়াটিয়া।

পুলিশ লাশ উদ্ধার করে নিয়ে আসার সময় উত্তেজি জনতা নামক এক সন্ত্রাসী কে গণপিটুনি দেয়।এ সময় পুলিশ মারমুখী জনতার হাত থেকে মমিন কে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে।

নিহত তানভীরের মা পারভীন জানায়, মঙ্গলবার দুপুর দেড়টার দিকে স্থানীয় সন্ত্রাসী মিল্লাত বাহিনীর সদস্য কামরুল,জনু,সজীব, জামাই শাকিল,রাসেল,লিমন,মমিন সহ বেশ কয়েক সন্ত্রাসী তার পুত্রকে রাস্তা থেকে তুলে নিয়ে চন্দ্রাবাড়ীর ভিতরে নিয়ে গিয়ে মারধর করে। একেপর্যায়ে সন্ত্রাসীরা নিহত তানভীর কে ছেড়ে দেয়।পরে বাসায় ফিরে এলে সন্ত্রাসীরা পুনরায় তানভীর কে ফোন করে জানায় যে তাকে পেলে রাস্তায় পেলে আবারো পিটুনি দেওয়া হবে। এ ঘটনা তানভীর তার মাকে জাানিয়ে নিজ ঘরে প্রবপশ করে।নিহতের মা আরো জানায় এই ভয়ে পরিবারের সদস্যদের অলক্ষ্যে তানভীর নিজ ঘরে প্রবেশ করে সিলিং ফ্যানের সাথে গলায় ফাসঁ দিয়ে আত্নহত্যা করে।
নিহতের বাবা চা দোকানী নজরুল জানায়, তার ছেলে তার সাথে চায়ের দোকানে বসতো। এক সময় নিহত তানভীর অভিযুক্তদের সাথে চলাফেরা করতো।কিন্তু কয়েক মাস পূর্বে একটি অস্ত্র চালানোর গেমস ভিডিও আপলোড করে নিজ ফেসবুকে (ফাস্ট টাইম মেশিন চালালাম) আপলোড করে পোস্ট দেয়ায় পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে।এরপর থেকে তানভীর তার সাথেই চায়ের দোকানে বসতো। মঙ্গলবার দুপুরে তাকে তার স্ত্রী ফোন করে জানায় তানভীরের এক সময়ের সহোযোগিরা তানভীর কে মারধর করেছে এবং আবারো মারধর করবে।এই ভয়ে তানভীর আত্নহত্যা করেছে।

ঘটনার বিষয়টি নিশ্চিত করে ঘটনাস্থলে যাওয়া ফতুল্লা মডেল থানার উপপরিদর্শক শাহাদাত হোসেন জানান, সংবাদ পেয়ে তিনি ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতালে পাঠিয়েছেন। ঘটনাস্থলে উপস্থিত উত্তেজিত জনতা মমিন নামক এক সন্ত্রাসী কে চন্দ্রাবাড়ী থেকে আটক করে গণপিটুনি দেয়। পরে তিনি উত্তেজিত জনতার হাত থেকে মমিন কে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসেন।

উল্লেখ্য যে, চলতি বছরের মার্চ মাসের ২২ তারিখে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকের স্টোরিতে বন্দুক দিয়ে গুলি চালানোর একটি ভিডিও শেয়ার করে নিহত তানভীর । ভিডিওটি মুহূর্তে ছড়িয়ে পরায় পুলিশের নজরে আসে ওই কিশোর। এ ঘটনায় (২৩ মার্চ) ফতুল্লা রেল স্টেশন এলাকা থেকে গ্রেফতার করা হয়েছিলো তানভীর কে।

নিউজটি শেয়ার করুন...

আপনার মতামত লিখুন........


© All rights reserved © 2018 Alokitonarayanganj24.net
Design & Developed by M Host BD
error: দুঃখিত রাইট ক্লিক গ্রহনযোগ্য নয় !!!