মঙ্গলবার, ২৯ নভেম্বর ২০২২, ০৫:৪৯ অপরাহ্ন

ফতুল্লায় সাংবাদিককে চোখ উপড়ে ফেলার হুমকী

আক্তার ওরফে নাক্কু আক্তার

ষ্টাফ রিপোর্টারঃ সংবাদ প্রকাশের জের ধরে দৈনিক যুগের চিন্তা পত্রিকার ফতুল্লা প্রতিনিধি ও ফতুল্লা রিপোর্টার্স ক্লাবের অর্থ বিষয়ক সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন শুভকে যে কোন সময় জীবনে শেষ করিয়া ফেলিবে নচেৎ দুই চোখ উঠাইয়া ফেলার হুমকী প্রদান করেছে অটো এবং মিশুক গাড়ী চোরদের শেল্টারদাতা আক্তার ওরফে নাক্কু আক্তার।

এ ঘটনায় সাংবাদিক সাদ্দাম হোসেন শুভ ফতুল্লা মডেল থানায় একটি সাধারন ডায়েরী করেছেন যার নং ১০০ ( ১/১/২২ইং)।
জিডি সুত্রে জানা যায়,দক্ষিন নয়ামাটি কবরস্থানের বাসিন্দা মৃত.আহাম্মদ আলীর ছেলে অটো এবং মিশুক গাড়ী চোরদের শেল্টারদাতা আক্তার ওরফে নাক্কু আক্তারের তাহার লোকজন দ্বারা সারাদেশে অটোরিক্সা এবং মিশুক গাড়ী চুরি করিয়া থাকে। উক্ত বিবাদীর নামে বেশ কিছুদিন পূর্বে ফতুল্লা মডেল থানায় মিশুক গাড়ী চুরির বিষয়ে একটি মামলা হয় এবং তাহার নাম ও ছবি সহ বিভিন্ন পত্র পত্রিকায় প্রকাশিত হয়। উক্ত বিবাদীর ছবি ও নাম বিভিন্ন পত্রিকায় প্রকাশিত হওয়ার পর থেকেই বিবাদী আমাকে সন্দেহ করিয়া বিভিন্ন সময় রাস্তা ঘাটে বিভিন্ন ধরনের হুমকি ধামকি প্রদান করিয়া আসিতেছে। এরই ধারাবাহিকতায় অদ্য সর্বশেষ ১ নভেম্বর সন্ধ্যা ৬টায় আমি পশ্চিম নন্দলালপুর রোমানের চায়ের দোকানের সামনে দিয়া যাওয়ার সময় আক্তার আমাকে উক্ত দোকানের সামনে দেখিতে পাইয়া উপস্থিত লোকজনদের সামনে এই মর্মে হুমকি দেয় যে কোন সময় আমাকে জীবনে শেষ করিয়া ফেলিবে নচেৎ দুই চোখ উঠাইয়া ফেলার হুমকী প্রদান করে । উক্ত বিবাদী একজন সন্ত্রাসী প্রকৃতির লোক। আমি সাংবাদিকতার কাজে বিভিন্ন এলাকায় যাই। উক্ত বিবাদী যে কোন সময় আমাকে যে কোন এলাকায় পাইয়া সে নিজে অথবা অজ্ঞাত নামা সন্ত্রাসী দ্বারা আমাকে জীবনে শেষ করিয়া ফেলতে পারে নচেৎ আমার যে কোন বড় ধরনের ক্ষতি করিতে পারে। আক্তারের এরুপ হুমকিতে আমি নিরাপত্তাহীনতায় ভূগিতেছি।

এ বিষয়ে ফতুল্লা মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ শেখ রিজাউল হক দিপু বলেন, জিডি পেয়েছি, তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন...

আপনার মতামত লিখুন........


© All rights reserved © 2018 Alokitonarayanganj24.net
Design & Developed by M Host BD
error: দুঃখিত রাইট ক্লিক গ্রহনযোগ্য নয় !!!