মঙ্গলবার, ০৮ অক্টোবর ২০১৯, ০৭:০৬ অপরাহ্ন

ফতুল্লায় ২ মাসে ৬টি হত্যাসহ ১৮৮টি মামলা রুজু

আলোকিত নারায়ণগঞ্জ: ফতুল্লার মডেল থানার মাসিক অপরাধ হালচিত্রে গত আগষ্ট ও সেপ্টেম্বর(দুই) মাসের ৬১দিনে বিভিন্ন অপরাধে মাদক ও হত্যাসহ মোট মামলা রুজু হয়েছে ১৮৮ (একশ আটাশি) টি। এর মধ্যে মাদক জনিত মামলা রুজু হয়েছে ১শ‘টি। দুই মাসে অপমৃত্যু মামলা রুজু হয়েছে ১৫টি। ফতুল্লা মডেল থানার সার্বিক বিষয় আইন শৃঙ্খলা স্বাভাবিক এবং নিয়ন্ত্রণে এমনটাই দাবী থানা পুলিশের । কিন্ত এলাকাবাসী ও সচেতন মহলের দাবী আইন শৃঙ্খলা আগের তুলনায় গত আগষ্ট ও সেপ্টেম্বর মাসে ঝিমিয়ে পড়েছে।
আগষ্ট মাস : ফতুল্লা মডেল থানার পুলিশের দেয়া তথ্যমতে,ফতুল্লা মডেল থানায় গত আগষ্ট মাসের ৩১ দিনে মোট ১০৬টি মামলা রুজু হয়েছে। মামলাগুলো হলো হত্যা(খুন) ৫টি, ধর্ষন ৪টি, নারী ও শিশুনির্যাতন ও যৌতুকসহ ৮টি, চুরি মামলা ৩টি, পুলিশ আক্রান্ত ১টি, মারামারি (আদার সেকশন) মামলা ২৮টি, মাদকদ্রব্য মামলা ৫৪টি। ফতুল্লা থানা পুলিশ কর্তৃক উদ্ধার জনিত মাদকদ্রব্য হলো, ১৩৮১পিস ইয়াবা ট্যাবলেট, হেরোইন ৩১ গ্রাম ,গাঁজা ১কেজি ৪শ‘গ্রাম এবং ফেন্সিডিল ১ বোতল, বিদেশী চোলাই মদ ১ বোতল বা ১ লিটার। এছাড়া ৩.৫ ভরি স্বর্ণ উদ্ধার করেছে থানা পুলিশ । যার মূল্য ১০ লক্ষ টাকা । চোরাইকৃত ১টি অটো রিক্সা উদ্ধার করেছে ফতুল্লা থানা পুলিশ। এই মাসে অপমৃত্যূ মামলা রুজু হয়েছে ৮টি।
ফতুল্লা থানা পুলিশ আরো জানান, গত আগষ্ট মাসে থানা পুলিশ জি.আর ওয়ারেন্ট তামিল ৭৪টি এবং সি.আর ওয়ারেন্ট তামিল করেছে ৩০টি। আদলাত কর্তৃক সাজা দেয়া ওয়ারেন্ট তামিল ৩টি।
সেপ্টেম্বর মাস : এই মাসে ৩০ দিনে বিভিন্ন অপরাধে মোট মামলা রুজু হয়েছে ৮২ টি। এর মধ্যে মাদক জনিত ৪৬ টি । এর মধ্যে থানা পুলিশের মাত্র ৩০টি। এই মাসে সব চেয়ে কম মাদক উদ্ধার করেছে থানা পুলিশ যা আগের তুলনায় খুবই কম। মোট ৬ লক্ষ ৮৮ হাজার ৬শ টাকার মাদক উদ্ধার করেছে পুলিশ। এই মাসে হত্যা মামলা ১টি, ধর্ষণ মামলা ১টি, চুরি মামলা ৩টি, অন্যাণ্য (আদার সেকশনের) মামলা ২৭টি,নারী ও শিশু নির্যাতন মামলা ৪টি। এই মাসে অপমৃত্যূ মামলা রুজু হয়েছে ৭টি।
এই মাসে ইয়াবা ট্যাবলেট ১০৭৬পিস,গাঁজা ১ কেজি ১৫০ গ্রাম,হেরোইন ৩৫.৫ গ্রাম এবং ফেন্সিডিল ৩ বোতল উদ্ধার করেছে পুলিশ।
ফতুল্লা থানার অফিসার ইনচার্জ আসলাম হোসেন ইন্সপেক্টর (তদন্ত) হাসানুজ্জামান,ইন্সপেক্টর (অপরেশন) শাখাওয়াত হোসেনসহ সকলই থানার আইন শৃঙ্খলা ভাল রাখতে ঐক্য মতে কাজ করে যাচ্ছে। ফলে থানার পরিবেশ ও আইন শৃঙ্খলা ভালই আছে বলে দাবী পুলিশের।
তবে ব্যবসায়ীমহল ও এলাকাবাসীর দাবী আগের তুলনায় থানার আইন শৃঙ্খলা একটু ঝিমিয়ে পড়েছে। এখন আর আগের মতো শুনি না ফতুল্লা থানা পুলিশ জেলা পুলিশের মাসিক কল্যাণ সভায় পুরস্কার পাচ্ছেন। এমন কি কাজের সেরা পুরস্কার হাত ছাড়া হয়ে গেল ফতুল্লা থানা পুলিশের । থানায় দারোগাদের মধ্যে চেইন্ড অব কমান্ড নেই। বেশ কয়েকজন দারোগারা এই থানা থেকে বদলী হয়ে বেশ কয়েক বার আসা যাওয়া করে ,পরে আবার এই থানায় আসছে। কেহ আছেন ডিউ পরিবর্তন করে নতুন মেয়াদে এই থানায় বহাল । আগের মতো থানায় নেই তেমন মাদক উদ্ধার বা ওয়ারেন্ট তামিল । কতিপয় ৩/৪ জন অফিসার ছাড়া কেহ কর্ম দক্ষতার পরিচয় তেমন ফুটাতে পারেনি।
এছাড়া মডেল থানার সভাকক্ষে কমিউনিটি পুলিশের ওপেন হাউজ ডে (মাসিক সভা) হয়না। ফলে জনগণ তাদের মনের কথাগুলো বলতে পারেন না পুলিশের উধ্বর্তন কর্মকর্তাদের কাছে।
মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মো. আসলাম হোসেন জানান, গত মাসে ৩ (তিন) হাজার ৬০(ষাট) টি ওয়ারেন্ট খারিজ করেছি। আমাদের অফিসারেরা ওয়ারেন্ট খারিজে ব্যস্ত থাকায় এই মাসে মাদক উদ্ধার আগের চেয়ে কম হয়েছে। আমরা বক্তাবলী এলাকায় গত মাসে বিশাল ওপেন হাউজ ডে করেছি। সেখানে বিপুল সংখ্যক জনগণ উপস্থিত ছিলেন। আমাদের নারায়ণগঞ্জ জেলার সু যোগ্য এস,পি মহোদয় ছিলেন প্রধান অতিথি হিসেবে। থানার সভাকক্ষেও ওপেন হাউজ ডে হবে । আমাদের থানার কিছু কাছ আছে তা শেষ করে জনগনের মনে কথা শুনতে অবশ্যই ওপেন হাউজ ডে অনুষ্ঠান করা হবে। আমি থানার সবাইকে নিয়ে সকল অফিসার ও ফোর্সদের প্রচেষ্টায় থানার আইন শৃঙ্খলা ঠিক রাখতে কাজ করে যাচ্ছি। আমার কাছে থেকে ফতুল্লার সকল শ্রেনির মানুষ সমান এবং সঠিক সেবা পাবেন। আমি দুষ্ট দমন শ্রেষ্ঠ পালনে বদ্ধপরিকর। আমি যেন ফতুল্লাবাসীর পুলিশি সেবা বা প্রত্যাশা পূরন করতে পারি। এজন্য স্থানীয় গন্যমান্য রাজনীতিবিদ সাংবাদিকসহ সকলের তথ্য দিয়ে সহযোগিতা চাই। সাধারন মানুষের ন্যায়ের পথে পুলিশিং সেবা দিতে পারি। মাদক রোধে জঙ্গি ,সন্ত্রাস দমনে সবার সহযোগিতা কামনা করি।

নিউজটি শেয়ার করুন...

আপনার মতামত লিখুন........


© All rights reserved © 2018 Alokitonarayanganj24.net
Design & Developed BY N Host BD
error: দুঃখিত রাইট ক্লিক গ্রহনযোগ্য নয় !!!