বৃহস্পতিবার, ২০ জানুয়ারী ২০২২, ০৪:৩৩ পূর্বাহ্ন

ভোটার জটিলতার কারণে হচ্ছে না জেলা পরিষদ নির্বাচন

মো. মনির হোসেন: জেলা পরিষদ নির্বাচন সময়মতো হচ্ছে না, ফেব্রুয়ারিতে নতুন কমিশন এলে তাদের হাতেই এই নির্বাচন হবে, বর্তমান নির্বাচন কমিশন চলতি জানুয়ারি মাসে জেলা পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠান করতে চাইলেও ভোটার জটিলতার কারণে সেটা বাস্তবায়ন হচ্ছে না। চলতি জানুয়ারিতে মেয়াদ পার হবে বর্তমান জেলা পরিষদের।

সূত্রমতে, দেশের ৬১ জেলায় ২০১৬ সালের ২৮ ডিসেম্বর প্রথমবারের মতো জেলা পরিষদ নির্বাচন হয়। ২০১৭ সালের ১১ জানুয়ারি তারা শপথ নেন। ওই বছরের জানুয়ারি মাসেই জেলা পরিষদগুলোর প্রথম বৈঠক হয়। ফলে পরিষদের ৫ বছরের মেয়াদ চলতি মাসেই শেষ হবে। জেলা পরিষদ আইন অনুযায়ী পরিষদের মেয়াদ শেষ হওয়ার ১৮০ দিন আগে নির্বাচন অনুষ্ঠানের কথা রয়েছে। নির্বাচন না হলে কী হবে সেটা আইনে উল্লেখ করা নেই। তবে নির্বাচিত নতুন পরিষদ দায়িত্ব না নেওয়া পর্যন্ত বর্তমান পরিষদের কাজ চালিয়ে যাওয়ার সুযোগ রয়েছে।

এদিকে মেয়াদ শেষ হলে বর্তমান জেলা পরিষদের কী হবে তা নিয়ে আলোচনা শুরু হয়েছে। এ ক্ষেত্রে বিদ্যমান আইন অনুযায়ী নতুন জেলা পরিষদ গঠন না হওয়া পর্যন্ত বর্তমান পরিষদ দায়িত্ব অব্যাহত রাখবে নাকি প্রশাসক নিয়োগ দেওয়া হবে তা নিয়ে চলছে জল্পনা-কল্পনা। পরিষদে প্রশাসক বসাতে এরই মধ্যে প্রয়োজনীয় আইন সংশোধনের প্রক্রিয়াও শুরু হয়েছে। আইনটি সময়মতো পাস হলে শেষ পর্যন্ত হয়তো বর্তমান জেলা পরিষদ ভেঙে দিয়ে প্রশাসকই নিয়োগ দেবে সরকার। স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় ও নির্বাচন কমিশন সূত্রে এসব তথ্য পাওয়া গেছে।জেলা পরিষদের বিদ্যমান আইন অনুযায়ী, নতুন কোনও পরিষদ গঠন হওয়ার পর নির্বাচনের আগ পর্যন্ত সরকারের নিয়োগ পাওয়া প্রশাসক দায়িত্ব পালন করতে পারেন। কিন্তু পরে আর প্রশাসক নিয়োগের সুযোগ নেই। তবে, মেয়াদ শেষ হলে জেলা পরিষদে প্রশাসক নিয়োগের বিধান করতে সরকার এরই মধ্যে আইন সংশোধনের উদ্যোগ নিয়েছে। গত ২২ নভেম্বর মন্ত্রিসভায় আইন মন্ত্রণালয়ের ভেটিং সাপেক্ষে আইনের প্রয়োজনীয় সংশোধনী অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।

ওই বৈঠক শেষে প্রেস ব্রিফিংয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম জানিয়েছিলেন, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যানদের ৫ বছরের মেয়াদ শেষে নির্বাচন না হলে প্রশাসক নিয়োগ দেওয়ার বিধান রাখা হচ্ছে সংশোধিত আইনে। স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, ইতোমধ্যে আইনটি আইন মন্ত্রণালয়ের ভেটিং করার পর সংসদে উত্থাপনের জন্য সংসদ সচিবালয়ে পাঠানো হয়েছে। আইনটি সংশোধনের পর মেয়াদ শেষ হলে কোনও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান দায়িত্ব পালন করতে পারবে না।

মেয়াদ শেষ হওয়ার আগে জেলা পরিষদ নির্বাচন করা সম্ভব কিনা জানতে চাইলে নির্বাচন কমিশনের অতিরিক্ত সচিব অশোক কুমার দেবনাথ জানান, যেসব জেলার ইউনিয়ন পরিষদ সম্পন্ন হবে সেখানে জেলা পরিষদ নির্বাচন করার একটি সিদ্ধান্ত ছিল। কিন্তু বর্তমান কমিশনের মেয়াদ তো শেষের দিকে। দুই-একটি জেলার সব ইউপি ভোট সম্পন্ন হলেও জেলা পরিষদ নির্বাচন করতে ভোটার তালিকা প্রস্তুতসহ আরও কিছু সময় প্রয়োজন। কমিশনের হাতে যে সময় আছে তাতে সেটা হওয়ার সম্ভবনা দেখছি না, পরিষদের মেয়াদ শেষ হলে কী হবে জানতে চাইলে এই অতিরিক্ত সচিব বলেন, এটা সরকারের বিষয়। স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় বিষয়টি দেখবে।

পরিষদে প্রশাসক নিয়োগ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে স্থানীয় সরকার মন্ত্রী তাজুল ইসলাম বলেন, ‘বিদ্যমান আইনে জেলা পরিষদের মেয়াদ শেষ হলে প্রশাসক নিয়োগের সুযোগ নেই। সেটার দরকারও নেই। কারণ নতুন নির্বাচিত পরিষদ দায়িত্ব না নেওয়া পর্যন্ত বর্তমান পরিষদ তার কাজ চালিয়ে যাবে। তবে, জেলা পরিষদ আইন সংশোধন করে মেয়াদ শেষে নির্বাচন না হলে প্রশাসক নিয়োগের বিধান করতে মন্ত্রিসভায় আইন অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। মেয়াদ শেষ হলে অনেক সময় জটিলতা সৃষ্টি হয় বলেই আমরা আইন সংশোধন করে এই বিধান যুক্ত করছি। স্থানীয় সরকারের কিছু পরিষদে এই বিধান আছে। অন্যগুলোতেও এটা করতে চাচ্ছি। বর্তমান জেলা পরিষদের মেয়াদ শেষ হলে এই আইনটি পাস হওয়া সাপেক্ষে পরিষদে প্রশাসক নিয়োগ দেওয়া হতে পারে।’

এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘আমরা আইনটি সংসদে পাঠিয়ে দিয়েছি। সংসদের আসন্ন অধিবেশনে আইনটি পাস করার চেষ্টা করবো।’

প্রসঙ্গত, আগামী ১৬ জানুয়ারি জাতীয় সংসদের শীতকালীন অধিবেশন শুরু হবে।

 

নিউজটি শেয়ার করুন...

আপনার মতামত লিখুন........


© All rights reserved © 2018 Alokitonarayanganj24.net
Design & Developed by M Host BD
error: দুঃখিত রাইট ক্লিক গ্রহনযোগ্য নয় !!!