বৃহস্পতিবার, ২০ জানুয়ারী ২০২২, ০৪:৫১ পূর্বাহ্ন

রাজনীতির বীর পুরুষ শামীম ওসমান

মো. মনির হোসেন:দেশের সঙ্কটকালে জাতি যখন দিশেহারা ও বিভাজিত, তখন প্রয়োজন হয় সৎ, যোগ্য, দেশপ্রেমিক, বলিষ্ঠ ও নেতৃত্বের গুণাবলি সম্পন্ন নেতার, যাদের দূরদৃষ্টি ও নিঃস্বার্থ দৃষ্টিভঙ্গি জাতিকে ঐক্যবদ্ধ করে, দেখায় আলোকিত পথের দিশা, যাদের নির্দেশের অপেক্ষায় বসে থাকে লাখো কোটি জনতা, যেমনটি ছিলেন জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান।

তবে ব্যক্তিত্ব, প্রজ্ঞা, জ্ঞান ও দলীয় আদর্শের প্রতি অবিচল একজন রাজনীতিবীদ শামীন ওসমান, এসব গুণের সাথে দুর্দান্ত সাহস, দূরদর্শিতা মিলে আওয়ামী লীগ রাজনীতির কর্মী বান্ধব এক মহান পুরুষ নারায়ণগঞ্জের শামীম ওসমান, বর্তমান রাজনীতিতে শামীম ওসমানের বিকল্প খুবই বিরল, চলমান ধারায় আগামীতে আসবেন কিনা তাও অনিশ্চিত।

আশরাফ আহমেদ নামে এক আওয়ামীলীগ কর্মী জানান, স্বাধীন বাংলাদেশে নারায়ণগঞ্জের রাজনীতিতে বীর পুরুষ শামীম ওসমান , একথা আজ সর্বজন সীকৃত, এই একটি বিষয়ে দ্বিমত পোষণ করবেন এমন মানুষ খোঁজে পাওয়া দুস্কর। তাঁর দল আওয়ামী লীগের বাইরেও অপরাপর রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মী থেকে সাধারণ মানুষ সবাই তাঁকে শ্রদ্ধা করেন। নারায়ণগঞ্জের মানুষ ভালোবেসে বারবার তাঁকে বিজয়ী করেছেন, তিনি যেমনটা তাঁর নিজ এলাকার মানুষের মন জয় করেছেন তেমনটা জয় করেছেন দেশবাসীর মনও। নিরহংকারী অতি সাধারণ জীবনে অভ্যস্ত এই মানুষটি নিজ কর্মগুণে হয়ে ওঠেন নারয়ণগঞ্জের মানুষের প্রাণের নেতা।

বীর মোক্তিযোদ্ধা রমিজ উদ্দিন জানান, একেএম সামসুজ্জোহা ছিলেন তার পিতা, ১৯৭১ সালে প্রিয় মাতৃভূমিকে পাকিস্তানি হানাদারদের কবল থেকে মুক্ত করার জন্য লড়াই করেছেন, শুধু তাঁর পিতা নন, তার পরিবারের আরও সদস্য বড় ভাই নাসিম ওসমান, তার চাচা মোস্তফা সারোয়ার, বাবু সারোয়ার, মুক্তিযোদ্ধ করে বাংলাদেশকে স্বাধীন করার ক্ষেত্রে অবিস্মরণীয় ভূমিকা রেখেছেন, কোনরূপ ব্যক্তিস্বার্থ নয়, দেশের স্বার্থইকে প্রধান্য দিয়ে প্রাণপণে লড়াই করেছিলেন তারা, নির্লোভী, দেশপ্রেমিক পিতার যোগ্য উত্তরাধীকারী শামীম ওসমান ও পিতার মতো এমপি হয়েছেন, কিন্তু নিজের জন্য কিছুই করেননি, অনেকেই যেখানে এমপি হয়ে, মন্ত্রী হয়ে নিজের আখের গোছাতে ব্যস্ত হয়ে পড়েন, দুর্নীতির অভিযোগে সংবাদের শিরোনাম হয়ে ওঠেন, সেখানেই ব্যতিক্রম শামীম ওসমান ।

তবে শামীম ওসমান তার বক্তবে একাধিক বার বলেছেন ‘আমি আওয়ামী লীগের সন্তান’ আওয়ামী লীগের ঘরেই আমার জন্ম, আওয়ামী লীগ যখন ব্যথা পায়, আমারও কিন্তু হৃদয়ে ব্যথা লাগে, আওয়ামী লীগের একটা কর্মী যদি ব্যথা পায় সেই ব্যথা আমিও পাই, আজ নতুন করে ভেবে দেখার সময় এসেছে, এমন করে কজন ভালোবাসে আওয়ামী লীগকে, এখান থেকেই নিরুপণ করা যায় কতটা কমিটেড তিনি দলের প্রতি, কর্মীদের প্রতি, আর তা হবেই বা না কেন, তাঁর পিতাও যে এমনভাবে আওয়ামী লীগকে, বঙ্গবন্ধুকে ভালোবেসেছিলেন।

শামীম ওসমান আরও বলেন, সমাজে ৯৮ ভাগ ভালো মানুষ, কিন্তু ২ ভাগ খারাপের কারণে অনেক ভালো মানুষ সামনে আসতে পারে না, সব শ্রেণির মধ্যে এটা বিদ্যমান, আমি মিথ্যা কথা বলি না, সত্য বলার চেষ্টা করি, সত্যের ওপর থাকতে চাই, অনেক ত্যাগী আওয়ামী লীগের নেতাকর্মী আজ অবহেলিত, অনেকের বাড়িতে চুলাও ঠিকমতো জ্বলে না, কিন্তু এখন যেদিকে তাকাই সেদিকেই আওয়ামী লীগ, সবাই এখন আওয়ামী লীগ হয়ে গেছে।

ব্যক্তি জীবনঃ মহৎপ্রাণ এই রাজনীতিক ছাত্রজীবন থেকেই রাজনীতির সঙ্গে জড়িত ছিলেন, এ কে এম শামীন ওসমান বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের রাজনীতিবিদ এবং নারায়ণগঞ্জ -৪ আসন থেকে সপ্তম, দশম ও একাদশ সংসদ নির্বাচনে বিজয়ী সংসদ সদস্য, ১৯৯৬ সালে ৭ম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে শামীম ওসমান সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। ২০০১ সালে অবস্থান হারানোর পরে, তিনি ভারত এবং কানাডায় আত্মগোপনে চলে গিয়েছিলেন। প্রায় আট বছর পর, ২০০৯ সালের এপ্রিলে তিনি নারায়ণগঞ্জে ফিরে আসেন, যখন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ দল ক্ষমতায় ফিরেছিল। ২০১৪ সালের বাংলাদেশ সাধারণ নির্বাচনের জন্য দলটি শামীম ওসমানকে নারায়ণগঞ্জ -৪ আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার জন্য নির্বাচিত কবরী সরোয়ারকে বাদ দিয়েছিল। তিনি নারায়ণগঞ্জ -৪ আসন থেকে সপ্তম, দশম ও একাদশ সংসদ নির্বাচনে বিজয়ী সংসদ সদস্য।

পারিবারিক জীবনঃ শামীম ওসমানের বড় ভাই নাসিম ওসমান জাতীয় পার্টির সংসদ সদস্য ছিলেন। তার ছোট ভাই সেলিম ওসমান জাতীয় পার্টি থেকে সংসদ সদস্য। তাদের বাবা এ. কে. এম. শামসুজ্জোহা ছিলেন বাংলাদেশের প্রথম সংসদ সদস্য এবং তাদের দাদা এম ওসমান আলী ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাতা সদস্য, ছাত্র জীবনে সরকারি তোলারাম কলেজে লেখাপড়া করাকালীন মহিলা কলেজে অধ্যয়নরত সালমা ওসমান লিপির সাথে পরিচয় ও প্রেমের সম্পর্ক তৈরি হয়, পরবর্তীতে ১১ জুলাই ১৯৮৭ সালে সালমা ওসমান লিপির সাথে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন তিনি, তাদের পুত্র অয়ন ওসমান ও কন্যা অঙ্গনা ওসমান , পূত্র অয়ন ওসমানকে বিবাহ করিয়েছেন, শামীম ওসমানের পুত্রবধূ ইরফানা আহমদ রাস্মী একসময়ের রাজনীতিক ও বিশিষ্টজন খোকা মহিউদ্দিনের নাতনী, তার বাবা ফয়েজ উদ্দিন লাভলু নিজেও ব্যবসায়ী।

 

নিউজটি শেয়ার করুন...

আপনার মতামত লিখুন........


© All rights reserved © 2018 Alokitonarayanganj24.net
Design & Developed by M Host BD
error: দুঃখিত রাইট ক্লিক গ্রহনযোগ্য নয় !!!