বুধবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২১, ০৬:৫৪ অপরাহ্ন

রূপগঞ্জ ট্র্যাজেডি: পরিবার প্রতি কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ দিতে রিট

আলোকিত নারায়নগঞ্জ: রূপগঞ্জে সেজান জুস কারখানায় অগ্নিকাণ্ডে নিহত ও আহত প্রত্যেক শ্রমিকের পরিবারকে পর্যাপ্ত ক্ষতিপূরণ কেন দেওয়া হবে না, জানতে চেয়ে রুল জারি করেছেন হাইকোর্ট। একইসঙ্গে সেখানে অগ্নিকাণ্ড কেন ঘটেছে এবং তার জন্য কারা দায়ী এ বিষয়ে এক মাসের মধ্যে প্রতিবেদন দাখিল করতে বলেছেন আদালত। ফায়ার সার্ভিস কর্তৃপক্ষ, নারায়ণগঞ্জের ডিসি ও  শ্রম মন্ত্রণালয়ের কারখানা পরিদর্শককে এই প্রতিবেদন দাখিল করতে বলেছেন আদালত।

এ সংক্রান্ত রিটের শুনানি নিয়ে রবিবার (৭ নভেম্বর) বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমানের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ রুলসহ এসব আদেশ দেন।

আদালতে রিটের পক্ষে শুনানিতে ছিলেন ব্যারিস্টার সারা হোসেন, অনিক আর হক ও শারমিন আক্তার শিউলী।

গত ১০ জুলাই নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে সজীব গ্রুপের অঙ্গ প্রতিষ্ঠান সেজান জুস কারখানায় অগ্নিকাণ্ডে নিহত প্রত্যেক শ্রমিকের পরিবারকে এক কোটি টাকা ও আহতদের ৩৫ লাখ টাকা করে ক্ষতিপূরণ চেয়ে হাইকোর্টে রিট দায়ের করা হয়। রিটে তাৎক্ষণিকভাবে নিহত প্রত্যেক শ্রমিকের পরিবারকে ১০ লাখ ও আহতদের জন্য ৫ লাখ টাকা করে ক্ষতিপূরণের নির্দেশনা চাওয়া হয়।

মানবাধিকার সংগঠন আইন ও সালিশ কেন্দ্র (আসক), বাংলাদেশ লিগ্যাল অ্যান্ড সার্ভিসেস ট্রাস্ট, বাংলাদেশ পরিবেশ আইনবিদ সমিতি (বেলা) ও সেফটি অ্যান্ড রাইটস সোসাইটি এ রিট দায়ের করেন।

প্রসঙ্গত, গত ৮ জুলাই নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে সজীব গ্রুপের সেজান জুস কারখানায় ছয়তলা ভবনে আগুনে ৫২ জন শ্রমিকের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। ওই ঘটনায় আহত হয়েছেন প্রায় ২৫ জন শ্রমিক।

এই ঘটনায় রূপগঞ্জ থানায় একটি হত্যা মামলা হয়। সে মামলায় আসামি করা হয় সজীব গ্রুপের চেয়ারম্যান ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক আবুল হাসেম, তার ছেলে হাসীব বিন হাসেম, তারেক ইব্রাহীম, তাওসীব ইব্রাহীম, তানজীম ইব্রাহীম, প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) শাহান শাহ আজাদ, উপমহাব্যবস্থাপক মামুনুর রশিদ ও প্রকৌশলী মো. আলাউদ্দিনকে।

পরে সজীব গ্রুপের চেয়ারম্যান হাসেমসহ আট আসামিকে গ্রেফতার করেছিলো পুলিশ।

 

নিউজটি শেয়ার করুন...

আপনার মতামত লিখুন........


© All rights reserved © 2018 Alokitonarayanganj24.net
Design & Developed by M Host BD
error: দুঃখিত রাইট ক্লিক গ্রহনযোগ্য নয় !!!