সোমবার, ২৫ জানুয়ারী ২০২১, ০৬:৪৭ পূর্বাহ্ন

সিদ্ধিরগঞ্জে বকেয়া বেতনের দাবিতে শ্রমিকদের বিক্ষোভ রাস্তা অবরোধ

আলোকিত নারায়ণগঞ্জঃ সিদ্ধিরগঞ্জে আদমজী ইপিজেডে কুংতন অ্যাপারেলস লিমিটেড (ফ্যাশন সিটি) এর সাড়ে ৬ হাজার শ্রমিক তাদের বকেয়া বেতনের দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল করেন। একপর্যায়ে দাবি আদায়ের লক্ষ্যে শ্রমিকরা রাস্তায় বসে পড়েন। সকালে চিটাগাংরোড আদমজী নারায়ণগঞ্জ সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করার সময় পুলিশের সাথে বাগ্‌বিতণ্ডার একপর্যায়ে সংঘর্ষ বাধে। দুই দফা পুলিশের লাঠিচার্জ ও টিয়ারশেল নিক্ষেপের পর পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়ে ওঠে। আন্দোলনরত শ্রমিকরা নারায়ণগঞ্জ-আদমজী-চিটাগাংরোড সড়কের বিভিন্ন পয়েন্টে আগুন জ্বালিয়ে যান চলাচল বন্ধ করে দেন। এতে দুর্ভোগে পড়ে যাত্রীসাধারণ।

এদিকে বিক্ষুব্ধ শ্রমিকরা সিদ্ধিরগঞ্জ বিদ্যুৎ অফিসের সামনে একটি প্রাইভেট কার (ঢাকা-মেট্টো-গ-৩৯-০১৪৮) ভাঙচুর করে এবং গাড়িচালক নুর ইসলামকে মারধর করে আহত করে। পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার বেলা ২টার দিকে সড়কে যানবাহন চলাচল শুরু করে।

শ্রমিকরা জানায়, ৪ মাস ১০ দিনের বেতন বকেয়া পড়েছে তাদের। এ ছাড়া আরো অন্যান্য পাওনাদি রয়েছে প্রতিষ্ঠানটির শ্রমিকদের। কিন্তু মালিকপক্ষ কোনো বকেয়াই পরিশোধ করছে না। এতে করে চরম বিকাকে পড়েছেন শ্রমিকরা। বাড়ি ভাড়া দিতে পারছে না, খাবার খেতে পারছে না। এমনকি অফিসে আসার ভাড়াও যোগাড় করতে পারছে না অনেক শ্রমিক। আর মালিকপক্ষ দিই-দিচ্ছি করে বকেয়া পরিশোধও করছে না। এ অবস্থায় মানবেতর জীবন যাপন করছে শ্রমিকরা। একপ্রকার নিরুপায় হয়ে শনিবার সকালে ফ্যাক্টরির সামনে অবস্থান নিয়ে আমরা বিক্ষোভ করে। দাবি আদায়ে নেমে পড়ে রাস্তায়। কিন্তু শান্তিপূর্ণ আন্দোলন চলাকালে আকস্মিকভাবে বেপজার আনসাররা শ্রমিকদের বেধড়ক লাঠিপেটা করে। পুলিশ চটে গিয়ে তাদের ওপর টিয়ারশেল নিক্ষেপ করে।

সিদ্ধিরগঞ্জ থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি মজিবুর রহমান ও সাধারণ সম্পাদক ইয়াছিন মিয়া ঘটনাস্থলে গিয়ে শ্রমিকদের শান্ত করার চেষ্টা করেন। কিন্তু শ্রমিকরা বলে ‘আমাদের বকেয়া পাওনা কবে-কখন দেবে আগে এটা বলেন’। কোনো সুনির্দিষ্ট উত্তর দিতে না পেরে নেতারা ফিরে যান। বেলা ১২টার দিকে সিদ্ধিরগঞ্জ থানা ও ইন্ডাস্ট্রিয়াল পুলিশ যৌথভাবে ক্ষুধার্ত শ্রমিকদের বিরুদ্ধে অ্যাকশনে যায়। তারা লাঠিচার্জ ও টিয়ারশেল নিক্ষেপ করে শ্রমিকদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়। এতে বেশ কয়েকজন শ্রমিক আহত হয়।

এদিকে ছাত্রভঙ্গ হয়ে শ্রমিকরা রেমি ফ্যাক্টরির সামনে সড়কে আগুন জ্বালিয়ে পুনরায় বিক্ষোভ করে। পরে পুলিশ সেখান থেকে শ্রমিকদের ধাওয়া দেয়।

সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ওসি মশিউর রহমান বলেন, বেপজা ও শিল্প পুলিশ কারখানা কর্তৃপক্ষের সাথে আলোচনা করছে। কারখানা কর্তৃপক্ষ বলেছে ১৮ জানুয়ারি ১ মাসের বেতন পরিশোধ করবে। কিন্তু শ্রমিকরা মানছে না। ইন্ডাষ্ট্রিয়াল পুলিশ-৪-এর সিনিয়র এএসপি আইনুল হক জানান, আমরা মালিকপক্ষ থেকে শ্রমিকদের বকেয়া বেতন আদায় করে দেওয়ার চেষ্টা করছি।

নিউজটি শেয়ার করুন...

আপনার মতামত লিখুন........


© All rights reserved © 2018 Alokitonarayanganj24.net
Design & Developed by M Host BD
error: দুঃখিত রাইট ক্লিক গ্রহনযোগ্য নয় !!!