রবিবার, ৩১ মে ২০২০, ০৮:৩০ পূর্বাহ্ন

সোনারগাঁওয়ে জুয়া ও মাদকের আস্তানা পুড়িয়ে দিলেন ইউএনও

আলোকিত নারায়ণগঞ্জ: চোর যেমন শোনে না ধর্মের কাহিনি, তেমনি জুয়া ও নেশাখোররা মানে না দুঃসময়ের কোনো বাণী।

সরকারি ছুটি ও সারা দেশে প্রশাসনের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা করোনাভাইরাস প্রতিরোধে জনসচেতনতা এবং ত্রাণসামগ্রী নিয়ে ব্যস্ত ভেবে ওই সুযোগকে কাজে লাগাচ্ছেন অনেক মাদক ব্যবসায়ী ও জুয়াড়ি।

গত সোমবার রাতে নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁও উপজেলার নোয়াগাঁও গ্রামসংলগ্ন বিলে এমনই একটি জুয়ার আসর ও মাদক বিক্রির স্পটের খবর পান উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. সাইদুল ইসলাম।

এর পর চালানো হয় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নেতৃত্বে পুলিশের একটি দল নিয়ে সেখানে অভিযান। এ সময় প্রশাসনের উপস্থিতি টের পেয়ে জুয়াড়ি, মাদক বিক্রেতা ও নেশা খোড়রা দৌড়ে পালিয়ে যায়।

এসময় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. সাইদুল ইসলাম জুয়া ও মাদকের আস্তানা আগুন লাগিয়ে পুড়িয়ে দেয়।

এ ঘটনায় এলাকার মানুষের মধ্যে স্বস্থি ফিরে আসে। অভিযানে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- সোনারগাঁ উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) আল মামুন ও নোয়াগাঁও ইউপির চেয়ারম্যান ইউসুফ দেওয়ান।

সোনারগাঁও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. সাইদুল ইসলাম জানান, নোয়াগাঁও ইউপির এক সদস্যের নেতৃত্বে ১৫-২০ জনের একটি বাহিনী নোয়াগাঁও গ্রামের বিলে প্রতি রাতে জুয়ার আসর ও মাদকের হাট বসাচ্ছিল।

করোনাভাইরাস প্রতিরোধে প্রশাসনের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা ব্যস্ত ও সাধারণ মানুষ হোম কোয়ারেন্টিনে রয়েছে জেনে এ বাহিনীর সদস্যরা আরও বেশি বেপরোয়া হয়ে ওঠেন।

তিনি আরও জানান, মাদক বিক্রি ও জুয়ার আসরের মূলহোতা এক ইউপি সদস্যের নেতৃত্বে তার বাহিনী ওই এলাকায় সাধারণ কৃষকদের কৃষিজমির মাটিও জোরপূর্বক অবৈধভাবে কেটে নিয়ে বিক্রি করে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছিল।

প্রশাসনের পক্ষ থেকে অপরাধীদের মাটি কাটার সরঞ্জাম জব্দ করা হয়েছে। জুয়ার আসর বসানো, মাদক বিক্রি ও জোরপূর্বক অবৈধভাবে মাটি কাটার সঙ্গে জড়িতদের বিরুদ্ধে দ্রুত আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন...

আপনার মতামত লিখুন........


© All rights reserved © 2018 Alokitonarayanganj24.net
Design & Developed BY N Host BD
error: দুঃখিত রাইট ক্লিক গ্রহনযোগ্য নয় !!!