বুধবার, ২৯ জুন ২০২২, ১০:৪৩ অপরাহ্ন

সোনারগাঁয়ের সুস্বাদু লিচু এখন বাজারে

আলোকিত নারায়ণগঞ্জ:প্রাচীন বাংলার রাজধানী নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ লিচুর জন্যও বেশ বিখ্যাত। বাজারে আগাম আসে বলেই অন্য অঞ্চলের লিচুর তুলনায় এখানকার লিচুর কদর অনেক বেশি। রাজশাহী ও দিনাজপুরের লিচু আসার আগপর্যন্ত সোনারগাঁয়ের লিচুর দখলেই থাকে বাজার। আর আগাম বাজারে আসায় চাষিরা দামও পান ভালো।

সোনারগাঁয়ের কয়েকটি বাগান ঘুরে দেখা যায়, চাষিরা এখন গাছ থেকে লিচু সংগ্রহে ব্যস্ত সময় পার করছেন। গাছে গাছে ঝুলছে থোকা থোকা লিচু। বিভিন্ন এলাকার পাইকাররা লিচু কেনার জন্য বাগানগুলোতে ভিড় করছেন।

সোনারগাঁয়ে বর্তমানে কদমী, মোজাফফরপুরী, চায়না-৩, এলাচি ও পাতি এই পাঁচ ধরনের লিচুর চাষ হয়ে থাকে। লিচুগুলো বাজারে বিক্রি হচ্ছে বিভিন্ন দামে। বর্তমানে ১০০ কদমি লিচু ৪৫০ থেকে ৫৫০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। পাতি লিচু ৩০০ থেকে ৩৫০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে।

উপজেলা কৃষি অফিসের তথ্যমতে, সোনারগাঁ পৌরসভা, বৈদ্যেরবাজার, মোগরাপাড়া, বারদী, সনমান্দি ও সাদিপুর ইউনিয়নের বিভিন্ন স্থানে প্রায় তিন শতাধিক লিচু বাগান রয়েছে। তবে পৌরসভার সরদারবাড়ি, বাংলাদেশ লোক ও কারুশিল্প ফাউন্ডেশন, দুলালপুর, বাড়ী মজলিশ, দিঘীরপাড়, পানাম, অর্জুন্দি, বাগমুছা, দত্তপাড়া, গোবিন্দপুর, হাতকোপা, দরপত, ছাপেরবন্ধ, গোয়ালদী, টিপরদী, হরিষপুর, ইছাপাড়া, চিলারবাগ, কৃষ্ণপুরা, হাঁড়িয়া, পানাম গাবতলী, ষোলপাড়া ও ভট্টপুর এলাকায় ভালোমানের লিচুর চাষ হয়।

সাইফুল ইসলাম নামে এক বাগান মালিক জানান, সোনারগাঁয়ে বিভিন্ন প্রজাতির লিচুর চাষ হলেও কদমী লিচু চাষে অধিক লাভবান হওয়া যায়।

ব্যবসায়ী মুকুল মিয়া বলেন, লিচুর ফলন না দেখেই বাগান মালিকের কাছ থেকে ক্রয় করে থাকি। লিচু ব্যবসায়ীরা ভাগ্যের ওপর নির্ভর করে লিচু ব্যবসা করেন। এবছর ফলন ভালো হয়নি। তুলনামূলকভাবে সোনারগাঁয়ের লিচুর বেশ দাম থাকবে।

লিচু কিনতে আসা হুমায়ন কবির নাম এক ক্রেতা জানান, অন্য এলাকার চেয়ে সোনারগাঁয়ের লিচু আকারে বড় ও সুস্বাদু হওয়ায় চাহিদা বেশি। এছাড়া পাইকারি দামে লিচু পাওয়া যায় তাই প্রতিবছর এখানে আসা।

সোনারগাঁ উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মনিরা আক্তার জানান, সোনারগাঁয়ের ১০০ হেক্টর জমিতে লিচু চাষ হয়েছে। গতবছরের তুলনায় এ বছর সোনারগাঁয়ের লিচুর বেশ ভালো ফলন হয়েছে। লিচুর বাগান মালিক ও মৌসুমি ব্যবসায়ীরা এবার বেশ লাভবান হবেন এমনটাই আশা করছেন তারা।

তিনি আরও বলেন, আমরা লিচু বাগান মালিকদের বিভিন্ন বিষয়ে পরামর্শ দিয়ে যাচ্ছি। লিচুর মুকুল আসার পরপরই গাছে পানি দেওয়াসহ বাগানে কীটপতঙ্গ, মাকড়সা দূর করার জন্য বালাইনাশক স্প্রে করাসহ গাছ ও মুকুলের যত্ন নেওয়ার বিষয়ে পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

 

নিউজটি শেয়ার করুন...

আপনার মতামত লিখুন........


© All rights reserved © 2018 Alokitonarayanganj24.net
Design & Developed by M Host BD
error: দুঃখিত রাইট ক্লিক গ্রহনযোগ্য নয় !!!